pic_ms_iacd7_16_en.jpg

আলোকবর্তিকা

User Rating:  / 3
PoorBest 

আলোকবর্তিকা একটি সপ্ন , একটি চেতনা বিকাশের নাম । আলো যেমন অন্ধকার দুর করে এবং সাহস যোগায় ঠিক তেমনি ভাবে আলো আর ভালবাসা নিয়ে মানুষের পাশে দাড়ায় আলোকবর্তিকা।  আলোকবর্তিকা একটি অমুনাফাভোগী সামাজিক সংস্থা,অরাজনৈতিক, অমুনাফাভোগী সামাজিক সংগঠন।

বাগেরহাট সদরের

স্থানীয় যাত্রাপুর ইউনিয়ন ও আশপাশের তরুণদের স্ব সামাজিক দায়বদ্ধতায় অনুপ্রানিত হয়ে " আলোকবর্তিকা" নামক সংগঠনটি দাড় করানো হয়েছে । আলোকবর্তিকার সদস্য হিসেবে আমরা  আশা করি আমাদের দ্বারাই আমাদের এলাকার উন্নয়ন সম্ভব। সে লক্ষে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। স্বেচ্ছাসেবার মাধ্যমে এলাকার উন্নয়ন মূলক কাজে  যারা আমাদের সাথে কাজ করতে চাই, তারাই আমাদের আলোকবর্তিকার সদস্য হতে পারে। আলোকবর্তিকার প্রধান কাজের মধ্যে আছে - 

অসহায়, হত দরিদ্র শিশুদের পড়ানো, বাল্যবিবাহ রোধে প্রচারনা , সামাজিক অবক্ষয় রোধ করা,  জরুরী প্রয়োজনে রক্তের চাহিদা মেটাতে ব্লাড গ্রুপিং ও ডোনার তৈরি করা।  আমাদের এই কার্যক্রম সম্পর্কে ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউএনও মহোদয় কে অবহিত করলাম।  তারা আমাদের এ কাজের সার্বিক দিকনির্দেশনা প্রদানের মাধ্যমে ইতিবাচক দৃষ্টি প্রদানের মাধ্যমে কাজকে সাধুবাদ জানালেন।  সাহস দিলেন এবং আর্থিকভাবে বিভিন্ন ভাবে সহযোগিতার জন্য আশ্বস্ত করলেন।  

আমরা সামনে এগোনোর শক্তি ও সাহস পেলাম।

আমরা স্থায়ী ও কার্যকরী কমিটি গঠন করলাম।

বিভিন্ন কাজ সুন্দরভাবে সফল করার লক্ষে বিভিন্ন উপকমিটি গঠন করলাম। ২০১৫ সালের মে মাসে আমাদের কাজের যাত্রা শুরু হয়েছিল। আমরা শিশুদের বিনামূল্যে পড়াচ্ছি, যাত্রাপুর ইউনিয়নকে শতভাগ ব্লাড গ্রুপিং করার লক্ষে কাজ চলছে। বিশ হাজার লোকের ব্লাড গ্রুপিংয়ের টার্গেট কাজ চালানো হচ্ছে,  ইতিমধ্যে তের হাজার লোকের ব্লাড গ্রুপিং সম্পন্ন হয়েছে। আমার বিভিন্ন দিবস উদযাপন করি । পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান কার্যক্রম করেছি এবং ইউপি চেয়ারম্যানের মাধ্যমে   বাজারের বিভিন্ন স্থানে ডাস্টবিন বসানে হয়েছে।

আমরা বাল্যবিবাহ মুক্ত যাত্রাপুর দেখার জন্য সপ্ন দেখিছিলাম , সেটি আমাদের উদ্যেগের কারনে গত ৩-১১- ২০১৬ তারিখ যাত্রাপুর ইউনিয়নকে বাল্যবিবাহ মুক্ত ঘোষনা করলেন বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক। উপস্থিত ছিলেন ডিডিএলজি, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা,এসিল্যান্ড  ,  এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও বিভিন্ন স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী।

আমরা রাজনৈতিক দল নিরপেক্ষ ও সচ্ছতার সাথে সকল কাজ বাস্তবায়ন করে থাকি।

সর্বশেষ,আমি বিশ্বাস করি আমরা যদি আমাদের বিবেক কে জাগ্রত করি এবং সম্মিলিত ভাবে যার যার এলাকার উন্নয়নমূলক কাজে উদ্যোগ করি তবে, আমাদের এলাকার উন্নয়ন সম্ভব। 

সম্মিলিত ভাবে অন্ধকার দুর করে , আলো পৌছাতে পারলেই আমাদের সার্থকতা।

একটি আলোর কণা পেলে, 

লক্ষ প্রদিপ জ্বলে ;

একটি মানুষ,  মানুষ হলে

বিশ্ব জগৎ টলে!

Add comment

Only the commentator have the whole liability for any comment.


Security code
Refresh

Posts by Year