• header_en
  • header_bn

Policy Brief by year


  • Policy Brief

    • Policy brief on Governance challenges in disaster response and way forward: Cyclone Amphan and recent experiences

      ঘূর্ণিঝড়, জলোচ্ছাস, লবনাক্ততা, বন্যা এবং নদী ভাঙনে বাংলাদেশের উপকূল অঞ্চলে ৩ কোটি ৫০ লক্ষ এবং চরাঞ্চলে ৬৫ লক্ষ মানুষ মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে বসবাস করছে। ঘূর্ণিঝড় আমফানসহ সাম্প্রতিক দুর্যোগে উপক‚লে বসবাসকারী প্রায় ২ কোটি ৯৫ লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়, মোট ৩৭৫৭ জন মৃত্যুবরণ করে এবং দুর্যোগ মোকাবেলায় প্রাকৃতিক রক্ষাকবচ সুন্দরবনের জীববৈচিত্র্য, গাছ ও সরকারি অবকাঠামোর ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হয়। লক্ষণীয় যে সাম্প্রতিককালে জলবায়ু পরিবর্তনজনিত দুর্যোগ বৃদ্ধি পেলেও সাড়া প্রদান, দুর্যোগ সহনীয় অবকাঠামো বিশেষকরে উপকূলীয় বেড়িবাঁধ নির্মাণ এবং তার নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ক্ষেত্রে সুশাসনের ঘাটতির কারণে কম প্রবল দুর্যোগেও সম্পদ ও অবকাঠামোগত ক্ষয়-ক্ষতি ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে। এই প্রেক্ষিতে টিআইবি আমফানসহ পূর্বে সংঘটিত ৪টি দুর্যোগ- ঘূর্ণিঝড় সিডর (২০০৭), আইলা (২০০৯), রোয়ানু (২০১৬) ও বন্যা (২০১৯) মোকাবেলায় সরকার গৃহীত কার্যক্রমে সুশাসনের অগ্রগতি ও ঘাটতিসমূহ সামষ্টিক অভিজ্ঞতার আলোকে বিশ্লেষণ করে ‘‘দুর্যোগ মোকাবেলায় সুশাসনের চ্যালেঞ্জ ও উত্তরণের উপায়: ঘূর্ণিঝড় আমফানসহ সাম্প্রতিক অভিজ্ঞতা” শীর্ষক একটি গবেষণা পরিচালনা করেছে যা ২০২০

      ...

    • Policy brief on Forest Department: Governance Challenges and Way Forward

      ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) সম্প্রতি বনঅধিদপ্তর: সুশাসনের চ্যালেঞ্জ ও উত্তোরণের উপায়’ শীর্ষক একটি গবেষণা পরিচালনা করে যা ২০২০ সালের ৩০ ডিসেম্বর প্রকাশকরা হয়।এ গবেষণার প্রধান উদ্দেশ্য ছিল বনঅধিদপ্তরের কার্যক্রমে সুশাসনের চ্যালেঞ্জ সমূহ চিহ্নিত করা এবং এ সকল চ্যালেঞ্জ হতে উত্তরণে সুপারিশ প্রস্তাব করা। পুরো পলিসি ব্রিফের জন্য এখানে ক্লিক করুন।

    • Policy brief on Inclusiveness in Development and Disability: Governance Challenges and Way Forward

      ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) দীর্ঘদিন ধরে সমাজের বিভিন্ন প্রান্তিক, পিছিয়ে পড়া এবং সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর ওপর সুশাসন সহায়ক গবেষণা ও অধিপরামর্শ কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি টিআইবি‘উন্নয়নে অন্তর্ভুক্তি এবং প্রতিবন্ধিতা: সুশাসনের চ্যালেঞ্জ ও উত্তরণের উপায়’ শীর্ষক একটি গবেষণা পরিচালনা করে যা বিগত ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২১ এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রকাশ করা হয়।এ গবেষণার প্রধান উদ্দেশ্য ছিল উন্নয়নে প্রতিবন্ধিতাসহ ব্যক্তি (Persons with Disability)-দের অন্তর্ভুক্তিতে সুশাসনের চ্যালেঞ্জসমূহ চিহ্নিত করা এবং তা থেকে উত্তরণে সুনির্দিষ্ট সুপারিশ প্রস্তাব করা।  পুরো পলিসি ব্রিফের জন্য এখানে ক্লিক করুন।  

    • Policy brief on Mosquito Control in Dhaka City: Governance Challenges and Way Forward

      সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে কিউলেক্স মশার পরিমাণ স্বাভাবিকের তুলনায় চারগুণ বৃদ্ধির তথ্য পাওয়া গিয়েছে, যা জনগণের ব্যাপক দুর্ভোগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে টিআইবি’র পূর্বের গবেষণায় প্রাপ্ত ফলাফলের আলোকে ও বর্তমান পরিস্থিতিকে বিবেচনা করে এডিস মশাসহ সব ধরনের মশা নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধে সমন্বিত কর্মপরিকল্পনা ও কার্যক্রম গ্রহণ ও এই কার্যক্রমে সুশাসন নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের বিবেচনার জন্য নিচের সুপারিশগুলো প্রস্তাব করা হচ্ছে। পুরো পলিসি ব্রিফের জন্য এখানে ক্লিক করুন।  

    • Policy brief on RMG Sector in Covid-19 Crisis: Governance Challenges and Way Forward

      ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) রানা প্লাজা দুর্ঘটনার পর থেকে তৈরি পোশাক খাতে নিয়মিতভাবে গবেষণা কার্যক্রমের মাধ্যমে সুনির্দিষ্ট নির্দেশকের ভিত্তিতে সুশাসনের বিভিন্ন চ্যালেঞ্জসমূহ চিহ্নিত করা এবংতার ভিত্তিতে গুরুত্বপূর্ণ অংশীজনের সাথে অধিপরামর্শ কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। সম্প্রতি করোনা সংকটের কারণে তৈরি পোশাক খাতবিশেষভাবে চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়। এই প্রেক্ষিতে করোনা সংকটে তৈরি পোশাক খাতেউদ্ভূত সুশাসনের চ্যালেঞ্জসমূহ চিহ্নিত করা ও তা থেকে উত্তরণে করণীয় নির্ণয় করার প্রয়োজনীয়তা সৃষ্টি হয়। এই প্রেক্ষিতে টিআইবি “তৈরি পোশাক খাতে করোনা ভাইরাস উদ্ভূতসংকট: সুশাসনের চ্যালেঞ্জ ও করণীয়” শীর্ষক একটিগবেষণা পরিচালনা করে।গবেষণার প্রতিবেদনগত ১৭ ডিসেম্বর ২০২০ এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ঢাকা থেকে প্রকাশ করা হয়। পুরো পলিসি ব্রিফের জন্য এখানে ক্লিক করুন।  

    • Policy brief on Climate Change Mitigation Finance and Project Implementation in Bangladesh: Governance Challenges and Way Forwards

      ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) দুর্নীতি প্রতিরোধ ও সুশাসন প্রতিষ্ঠায় সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টির উদ্দেশ্যে জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ে জনগুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন খাত, প্রতিষ্ঠান ও বিষয় নিয়ে গবেষণা ও অধিপরামর্শ কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হিসেবে বাংলাদেশের স্বপ্রণোদিত বিভিন্ন উদ্যোগ জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রশংসিত হয়েছে। এই অর্জনকে এগিয়ে নিয়ে উচ্চতর পর্যায়ে বহুমুখী উৎকর্ষ নিশ্চিত করতে সরকারসহ সকল অংশীজনের সাথে সহায়ক ভূমিকা পালনের লক্ষ্যে টিআইবি ২০১০ সন হতে জলবায়ু অর্থায়নে সুশাসনের চ্যালেঞ্জ বিষয়ক গবেষণা ও অ্যাডভোকেসি কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি টিআইবি ‘‘বাংলাদেশে জলবায়ু পরিবর্তন প্রশমন অর্থায়ন ও প্রকল্প বাস্তবায়নে সুশাসনের চ্যালেঞ্জ ও উত্তরণের উপায়” শীর্ষক একটি গবেষণা পরিচালনা করে যা ০৫ নভেম্বর ২০২০ তারিখে প্রকাশ করা হয়। পুরো পলিসি ব্রিফের জন্য এখানে ক্লিক করুন।  

    • Policy brief on Governance Challenges in Tackling Corona Virus (Part II)

      ট্রান্সপারেন্সি ন্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) দুর্নীতি প্রতিরোধ ও সুশাসন প্রতিষ্ঠায় সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টির উদ্দেশ্যে জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ে জনগুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন খাত ও প্রতিষ্ঠান নিয়ে গবেষণা ও অধিপরামর্শমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। এই কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ইতোপূর্বে টিআইবি করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় প্রাক-সংক্রমণ, প্রস্তুতিমূলক পর্যায়, ও সংক্রমণ শুরুর প্রথম তিন মাসে সরকার কর্তৃক গৃহীত বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে সুশাসনের চ্যালেঞ্জ চিহ্নিত করার উদ্দেশ্য নিয়ে একটি গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করে। উক্ত গবেষণায় করোনা ভাইরাস মোকাবিলা কার্যক্রমে সুশাসনের প্রতিটি নির্দেশকের ক্ষেত্রে ব্যাপক ঘাটতি লক্ষ করা যায়, যার ফলে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রত্যাশিত পর্যায়ে রোধ করা সম্ভব হয় নি এবং চিকিৎসা ব্যবস্থাপনায় সংকট সৃষ্টি হয়। উক্ত গবেষণার ধারাবাহিকতায় করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সরকার কর্তৃক গৃহীত বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে পরবর্তী অগ্রগতি পর্যালোচনা এবং সুশাসনের বিদ্যমান চ্যালেঞ্জসমূহ চিহ্নিত করার উদ্দেশ্য নিয়ে টিআইবি দ্বিতীয় দফায় বর্তমান গবেষণা কার্যক্রমটি...

    • Policy brief on Judicial service

      বিচার ব্যবস্থার গুরুত্ব বিবেচনায় দীর্ঘদিন যাবৎ দেশের বিভিন্ন আদালত ও বিচারিক সেবা খাত নিয়ে গবেষণা এবং তার আলোকে অধিপরামর্শ কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)। বিচার ব্যবস্থার অন্তর্ভুক্ত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, প্রক্রিয়া ও সেবা নিয়ে এ পর্যন্ত টিআইবি’র বেশ কিছু গবেষণায় বিচার বিচার ব্যবস্থায় সুশাসনের বিভিন্ন সমস্যা চিহ্নিত হয়েছে। ১৯৯৭ সাল থেকে শুরু করে সর্বশেষ ২০১৭ সালে ‘সেবাখাতে দুর্নীতি: জাতীয় খানা জরিপ’ শীর্ষক প্রকাশিত আটটি জরিপে নিয়মিতভাবে বিচারিক সেবা নিতে গিয়ে বাংলাদেশে বসবাসরত খানাগুলো কী ধরনের দুর্নীতির অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হয় তা উঠে আসে। এছাড়া ২০১৭ সালে টিআইবি কর্তৃক পরিচালিত ‘বাংলাদেশের অধস্তন আদালত ব্যবস্থা: সুশাসনের চ্যালেঞ্জ ও উত্তরণের উপায়’ শীর্ষক অপর একটি গবেষণায় দেশের অধস্তন আদালত ব্যবস্থায় বিরাজমান সুশাসনের চ্যালেঞ্জসমূহ চিহ্নিত হয়েছে। উল্লেখ্য, এসব গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশের পর টিআইবির অধিপরামর্শ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে প্রতিবেদনসমূহের অনুলিপি ও পরবর্তীতে পৃথক পৃথক পলিসি ব্রিফ প্রেরণ করা হয়। বাংলাদেশের...

    • Policy Brief on Supervisory Role and Regulating Defaulted Loan: Governance Challenges of Bangladesh Bank and Way Forward

      সুশাসন প্রতিষ্ঠার সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন জনগুরুত্বপূর্ণ খাত ও প্রতিষ্ঠান এবং জনগুরুত্ত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে গবেষণাসহ বিভিন্ন ধরনের অধিপরামর্শ কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। যার অংশ হিসেবে সম্প্রতি টিআইবি ‘ব্যাংকিং খাত তদারকি ও খেলাপি ঋণ নিয়ন্ত্রণ: বাংলাদেশ ব্যাংকের সুশাসনের চ্যালেঞ্জ ও উত্তরণের উপায়’ শীর্ষক একটি গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করে। ব্যাংকিং খাতের তদারকি ও খেলাপি ঋণ নিয়ন্ত্রণ কর্মকা-ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সুশাসনের ঘাটতি ও এর কারণসমূহ চিহ্নিত করা এবং গবেষণা ফলাফলের ভিত্তিতে সুপারিশ প্রণয়নের উদ্দেশ্য নিয়ে পরিচালিত এ গবেষণাটি ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ তারিখে প্রকাশ করা হয়। পুরো পলিসি ব্রিফের জন্য এখানে ক্লিক করুন।

       

    • Policy Brief on Governance in Public Procurement: Effectiveness of E-GP in Bangladesh

      ২০২১ সালের মধ্যে সমস্ত সরকারি পরিষেবা ডিজিটাল করার সরকারের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে ২০১১ সালের ২ জুন থেকে সরকারি ক্রয়ে স্বচ্ছতা ও দক্ষতা নিশ্চিত করতে ই-গভর্নমেন্ট প্রকিউরমেন্ট (সংক্ষেপে ই-জিপি) প্রবর্তিত হয়। এটি ‘সেন্ট্রাল প্রকিউরমেন্ট টেকনিক্যাল ইউনিট’-এর অধীনে একটি ওয়েব পোর্টালের মাধ্যমে পরিচালিত হচ্ছে। একইসাথে পাবলিক প্রকিউরমেন্ট আইন ২০০৬ ও পাবলিক প্রকিউরমেন্ট বিধিমালা ২০০৮ অনুসারে ‘বাংলাদেশ ই-গভর্নমেন্ট প্রকিউরমেন্ট (ই-জিপি) গাইডলাইন ২০১১’ প্রণয়ন করা হয়, যা অনুসরণ করে সব সরকারি প্রতিষ্ঠানের ই-জিপি’র মাধ্যমে ক্রয় বাধ্যতামূলক। প্রাথমিকভাবে চারটি প্রতিষ্ঠানকে কেন্দ্র করে ই-জিপি বাস্তবায়ন শুরু হয় - স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি), সড়ক ও জনপথ (সওজ), পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো), এবং পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (আরইবি)। ই-জিপি প্রবর্তনের প্রায় একদশক পর বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানে ই-জিপি’র মাধ্যমে সরকারি ক্রয়ের ক্ষেত্রে কতটুকু অগ্রগতি হয়েছে তার ওপর বিস্তারিত গবেষণার ঘাটতির প্রেক্ষিতে টিআইবি একটি গবেষণা সম্পন্ন করেছে, যা ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ তারিখে প্রকাশিত হয়েছে। এই পলিসি ব্রিফ...

    << < 1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 > >> (10)

Policy Brief List